(বিএনপি কমিউনিকেশন) — সোমবার, মার্চ ৬, অনুষ্ঠিত সিলেটের ওসমানীনগর, জগন্নাথপুর ও কিশোরগঞ্জে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি’র প্রার্থীরা  বিপুল ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

সিলেটের ওসমানীনগর

সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলা পরিষদের প্রথম নির্বাচনে ৫২ কেন্দ্রের মধ্যে সবকটি কেন্দ্রের প্রাপ্ত ফলাফলে চেয়ারম্যান পদে বেসরকারীভাবে বিজয়ী হয়েছেন বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী ময়নুল হক চৌধুরী (ধানের শীষ প্রতীক)।

৫২টি কেন্দ্রে ময়নুল হক চৌধুরী পেয়েছেন ১৯৮৩৮ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আখতারুজ্জামান চৌধুরী জগলু (ঘোড়া প্রতীক) পেয়েছেন ১৭৮৬৫।

এছাড়া আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী আতাউর রহমান (নৌকা প্রতীক) পেয়েছেন ৯৮০৯ ভোট এবং জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী শিব্বির আহমদ (লাঙ্গল প্রতীক) পেয়েছেন ২৪২৪ ভোট।

জগন্নাথপুর

জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বেসরকারীভাবে বিজয়ী হয়েছেন বিএনপি মনোনিত প্রার্থী আতাউর রহমান। ৮৭টি কেন্দ্রে প্রাপ্ত ভোটের সংখ্যার ভিত্তিতে তিনি এগিয়ে রয়েছেন।

৮৭টি কেন্দ্রের মধ্যে বিএনপির আতাউর রহমান ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ২৯ হাজার ৮৬৩টি ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সৈয়দ আকমল হোসেন নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ২৪ হাজার ২৩টি ভোট।

জগন্নাথপুর উপজেলা একটি পৌরসভা ও ৮টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত। এ উপজেলায় মোট ভোটার সংখ্যা এক লাখ ৬৭ হাজার ৪৯৯ জন। মোট ৮৭টি ভোট কেন্দ্রের মোট ৪৩২টি বুথে ভোট গ্রহণ হয়েছে।

কিশোরগঞ্জ

কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর উপজেলা পরিষদের উপ-নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী জহিরুল ইসলাম মবিন (ধানের শীষ) প্রতীক নিয়ে ২৭ হাজার ৩০২ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী ও প্রয়াত উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আয়ুব আলীর ছেলে মোহাম্মদ সোহেল (আনারস) প্রতীক নিয়ে ২১ হাজার ৩২৮ ভোট এবং আওয়ামী লীগ প্রার্থী জহিরুল ইসলাম নূরু (নৌকা) পেয়েছে ১৯ হাজার ২২ ভোট।