(বিএনপি কমিউনিকেশন)   —   বিভিন্নভাবে শক্তি প্রয়োগ করে প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহাকে পদত্যাগ করানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

শনিবার, নভেম্বর ১১, সকাল ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে জাতীয়তাবাদী নাগরিক দলের আয়োজনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এম কে আনোয়ারের স্মরণে এক দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভায় তিনি এ অভিযোগ করেন।

খন্দকার মোশাররফ বলেন, আমরা আজকে বিভিন্ন গণমাধ্যমসহ-বিভিন্ন মহল থেকে শুনতে পাচ্ছি প্রধান বিচারপতি নাকি পদত্যাগ করেছেন। আবার এটাও শুনেছি তিনি দেশে ফেরার জন্য সিঙ্গাপুর পর্যন্ত এসেছিলেন। নানা রকম জল্পনা কল্পনা চলছে। আমরা উদ্বিগ্ন। দেশের প্রধান বিচারপতির সাথে যদি এই ধরনের আচরণ করা হয়, জোর করে সুস্থ ব্যক্তিকে অসুস্থ বানিয়ে ছুটি দেয়া হয়। তাকে যদি পদত্যাগ করতে বাধ্য করা হয়। তাহলে বাংলাদেশের জন্য এর চেয়ে দুর্ভাগ্যজনক ও লজ্জাজনক আর কিছুই হতে পারে না।

মোশাররফ বলেন, সরকার ভয় পেয়ে গিয়েছিল। এই প্রধান বিচারপতি যদি থাকেন তাহলে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় হওয়া ১৫৪ জন সংসদ সদস্যকে অবৈধ ঘোষণা করবেন। তাই আমরা শুনেছি কীভাবে তাকে পদত্যাগ করানো হয়েছে। সরকারেরর পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে তিনি নাকি অসুস্থতায় পদত্যাগ করেছেন। তিনি প্রধান বিচারপতি যখন বিদেশে যান নিজ মুখে গণমাধ্যমের সামনে বলে গেছেন তিনি অসুস্থ নন। সুস্থ আছেন আবার তিনি ফিরে আসবেন। আমরা তখন আশা করেছিলাম সুপ্রিম কোর্টে তার আসনে তাকে আবার দেখা যাবে।

জাতীয়তাবাদী নাগরিক দলের সভাপতি শাহজাদা সৈয়দ ওমর ফারুক পীর সাহেবের সভাপতিত্বে এসময় আরও বক্তব্য রাখেন-বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান অ্যাড. জয়নুল আবেদীন, এনডিপির ভারপাপ্ত মহাসচিব মঞ্জুর হোসেন ঈসা, কক্সবাজার জেলা বিএনপি’র সভাপতি সাবেক এমপি শাহজাহান চৌধুরী, সাবেক এমপি আতাউর রহমান আঙ্গুর, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক এড. জাবেদ ইকবাল, কল্যাণ পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান সাহিদুর রহমান তামান্না, দেশ রক্ষা আন্দোলনের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা এম সানোয়ার হোসেন ও সাবেক ছাত্র নেতা শাহজাহান মিয়া সম্রাট সহ প্রমুখ।