(বিএনপি কমিউনিকেশন)   —  শনিবার, ডিসেম্বর ৩০, অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেটে পঞ্চম রেজিস্টার্ড গ্র্যাজুয়েট প্রতিনিধি নির্বাচন।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় সিনেটে ২৫ জন রেজিস্টার্ড গ্রাজুয়েটস প্রতিনিধি নির্বাচনে জাতীয়তাবাদী প্যানেলের এজেন্ডা হলো –  

  • বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার পরিবেশ ফিরিয়ে আনা
  • বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিবাচক ভাবমূর্তি পুনরুদ্ধার
  • বিশ্ববিদ্যালয়ের উচ্চতর গবেষণার ক্ষেত্রে বর্তমান নাজুক অবস্থা বিরাজ করছে তা দূর করা
  • গবেষণা খাতে ব্যয় বৃদ্ধির ব্যবস্থা করা
  • শিক্ষক নিয়োগে মেধাকে প্রাধান্য দেয়া
  • সিনেট শিক্ষক, রেজিস্টার্ড গ্র্যাজুয়েটস প্রতিনিধিসহ সব ক্যাটাগরিতে নিয়মিত নির্বাচন অনুষ্ঠান
  • ক্যাম্পাসে সব ছাত্র-ছাত্রীদের সহাবস্থান নিশ্চিত, সুস্থ ছাত্র রাজনীতি চর্চার কেন্দ্রিক ছাত্র সংসদ জাকসু ও হল সংসদসমূহের নির্বাচনের ব্যবস্থা
  • বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাকালীন মাস্টার প্লান বা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে যথাযথ কর্তৃপক্ষের বরাবর চাপসৃষ্টি এবং ছাত্র-ছাত্রীদের আবাসিক সমস্যা
  • চিকিৎসা সমস্যা এবং হলের খাবারের মান ও অন্যান্য সুযোগসুবিধা বৃদ্ধিতে সিনেটে ভূমিকা রাখা
  • বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য ও জীববৈচিত্র সংরক্ষণ এবং সকল প্রকার অনিয়ম-দুর্নীতি রোধ করা হবে

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় সিনেটে ২৫ জন রেজিস্টার্ড গ্রাজুয়েটস প্রতিনিধি নির্বাচনে জাতীয়তাবাদী পরিষদের প্রার্থীরা হলেন –

১। অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ কামরুল আহসা

২। অধ্যাপক ড. মুহম্মদ নজরুল ইসলাম

৩। ইলিম মোহাম্মদ নাজমুল হোসেন

৪। কে এম রাশেদুল হাসান

৫। মো. আবদুল্লাহ আল মামুন (রাহাত)

৬। মো. আলমগীর সরকার

৭। মো. আজগর হোসেন

৮।মো. আশরাফ উদ্দিন খান

৯। অধ্যাপক ড. মো. নুরুল ইসলাম

১০। রবিউল ইসলাম

১১। মো. সাবির হোসাইন

১২। অধ্যাপক মো. শামছুল আলম (সেলিম)

১৩। ড. মো. তৌফিকুল ইসলাম মিথিল

১৪। মো. জিয়াউর রহমান (জিয়া)

১৫। মোহাম্মদ ফরিদ মিয়া আরমান

১৬। মো. নাজমুল হাসান (অভি)

১৭। মোহাম্মদ সাহীদুল ইসলাম জুয়েল

১৮। মো. জামাল উদ্দিন রুনু

১৯। মো. রবিউল ইসলাম

২০। রুহুল আমিন কুতুব উদ্দিন আহমাদ

২১। সাবিনা ইয়াসমীন

২২। শাহনাজ পারভীন (লিপি)

২৩। অধ্যাপক ড. শামীমা সুলতানা (লাকি)

২৪। শিহাব উদ্দিন খান

২৫। সৈয়দ আবদাল আহমদ।