(বিএনপি কমিউনিকেশন) – বুধবার, জানুয়ারী ১০, ২০১৮ নয়াপল্টন বিএনপি কার্যালয়ে প্রেসব্রিফিং এ বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বলেন,  বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কর্মকান্ডে ব্যঘাত সৃষ্টি করতে আওয়ামী লীগের নীলনকশা অনুযায়ী ১৪ মামলা স্থানান্তর করা হয়েছে। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন আবারও একতরফা করতে যে যড়যন্ত্র ও অপচেষ্টা চলছে এটিও তার অংশ।

নিচে প্রেসব্রিফিং এর পূর্ণপাঠ তুলে দেয়া হলো –

 

সুপ্রিয় সাংবাদিক ভাই ও বোনেরা,
আস্সালামু আলাইকুম। সবাইকে জানাচ্ছি আমার আন্তরিক শুভেচ্ছা।
বিএনপি চেয়ারপার্সন, সাবেক তিনবারের প্রধানমন্ত্রী দেশের বৃহৎ রাজনৈতিক দলের প্রধান দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা ও হয়রানীমূলক ১৪টি মামলা রাজধানীর বকশীবাজারের আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিশেষ এজলাসে স্থানান্তর করা হয়েছে। সোমবার আইন মন্ত্রণালয়ের আইন ও বিচার বিভাগের বিচার শাখা থেকে এ সংক্রান্ত এক প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। যা প্রতিহিংসামূলক রাজনীতির বহিঃপ্রকাশ। ক্যামেরা ট্রায়ালের মাধ্যমে বিচার কাজ পরিচালনা করার গভীর ষড়যন্ত্র। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিএনপি চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে আরও বেশী হয়রানী করতেই সরকারের আর একটি নির্মম পদক্ষেপ। এই কারণেই সরকার এ প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। আপনারা দেখেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন ক্ষমতায় বসেন তাঁর বিরুদ্ধে ১৫টি মামলা বিচারাধীন ছিল। আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে হত্যা, ধর্ষণসহ হাজার হাজার মামলা চলমান ছিল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিএনপি চেয়ারপারসনের বিরুদ্ধে করা ১/১১ এর অবৈধ সরকারের করা কয়েকটি মামলা ছিল অভিন্ন। অথচ তারা ক্ষমতায় বসার পর প্রধানমন্ত্রীর মামলাসহ আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের হাজার হাজার মামলা আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে নিজেদের মামলাগুলো জাদুর কাঠির ইশারায় প্রত্যাহার হয়ে যায়। আর বিএনপি চেয়ারপারসনসহ বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা জাল ও ভুয়া নথি তৈরী করে মিথ্যা মামলাগুলো চলে সুপারসনিক গতিতে।
বন্ধুরা,
আপনারা দেখছেন বিএনপি চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে হয়রানীমূলক মিথ্যা মামলায় এমনিতে সপ্তাহে কয়েকদিন আদালতে হাজিরা দিতে হয়। নতুন মামলাগুলো বকশিবাজারে স্থানান্তরের উদ্দেশ্য হলো-বেগম জিয়াকে প্রতিনিয়ত হয়রানীর মধ্যে রাখা এবং অবিরামভাবে হেনস্তা করা। বেগম খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কর্মকান্ডে ব্যঘাত সৃষ্টি করতে আওয়ামী লীগের নীলনকশা অনুযায়ী ১৪ মামলা স্থানান্তর করা হয়েছে। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন আবারও একতরফা করতে যে যড়যন্ত্র ও অপচেষ্টা চলছে এটিও তার অংশ। আওয়ামী দু:শাসনে অশান্তির আগুনে ভিতরে ভিতরে মানুষ দগ্ধ হচ্ছে। আওয়ামী সরকার বর্তমান রাজনৈতিক সংকট সমাধানের হাইওয়ের দিকে না গিয়ে চক্রান্তের হদিস করে বেড়াচ্ছে। ক্ষমতার মোহে অন্ধের মতো এরা এখন সুপথের সন্ধান পাচ্ছে না। তাই দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী বিএনপি চেয়ারপার্সনকে নিয়ে চক্রান্তে মেতে উঠেছে। আমি সুস্পষ্টভাবে বলছি-নিজেদের বোনা চক্রান্তজালে নিজেরাই আটকা পড়বেন। জনগণই রাজপথে চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে।
সাংবাদিক ভাই ও বোনেরা,
আপনারা দেখছেন বেশ কয়েকদিন ধরে চলা শৈত্য প্রবাহ ও তীব্র শীতে উত্তরাঞ্চলসহ গোটা দেশ শীতে কাঁপছে। কয়েকদিনের শীতে এরই মধ্যে শিশু ও বৃদ্ধসহ শতাধিক লোকের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। হাসপাতালগুলোতে শীতজনিত রোগীদের ভীড় জমছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত সরকারের তরফ থেকে গরীব, দুস্থ ও শীতার্ত মানুষের মাঝে পর্যাপ্ত শীতবস্ত্র বিতরন করা হয়নি। বিএনপির স্থানীয় নেতা-কর্মীরা ইতোমধ্যে শীতার্তদের পাশে দাঁড়িয়ে শীতব¯ ¿বিতরণসহ নানাভাবে সহায়তা করছেন। যদিও শীতের তীব্রতা গতকাল থেকে একটু কমছে। কিন্তু আবহাওয়া অধিদপ্তর সুত্রে গণমাধমে  এসেছে আবারও জানুয়ারীর দ্বিতীয় সপ্তাহে শীতের তীব্রতা বাড়বে। আািম জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির পক্ষ থেকে বিএনপি নেতা-কর্মীসহ সমাজের বিত্তশালীদের শীতার্ত মানুষের পাশে দাড়াঁনোর আহবান জানাচ্ছি।
প্রিয় সাংবাদিক বন্ধুরা,
আপনারা ইতোমধ্যে দেখেছেন গতকাল নির্বাচন কমিশন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদে উপনির্বাচনে তফসিল ঘোষনা করেছে। একই সঙ্গে বেশ কিছু ওয়ার্ডে কাউন্সিলর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। বিএনপি তথা ২০ দলীয় জোটের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রার্থীতা ঘোষনারও প্রস্ততি চলছে। কিন্তু আজও গণমাধ্যমে খবর বেরিয়েছে শঙ্কা ও সংশয়ের মধ্যেই তফসিল ঘোষনা হয়েছে। হঠাৎ আইনী মারপ্যাঁচ দেখিয়ে নির্বাচনকে কোন রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিলের চেষ্টা হয় কী না তা নিয়ে জনমনে গভীর সন্দেহ সৃষ্টি হয়েছে। তাছাড়া আদৌ নির্বাচন সুষ্ঠু হবে কী না এমন প্রশ্নও ঘোরপাক খাচ্ছে। ডিএনসিসি নির্বাচনের তফসিল ঘোষনা হলেও এখন পর্যন্ত সুষ্ঠু নির্বাচনের কোন পরিবেশ নির্বাচনী এলাকায় নেই। বিরোধী দলগুলোর সভা সমাবেশ দুরে থাক মতবিনিময় সভা করার মতোও পরিবেশ নেই। আমি জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির পক্ষ থেকে ডিএনসিসি নির্বাচন সুষ্ঠু করতে নির্বাচনী মাঠ সমতল করার জন্য নির্বাচন কমিশনের প্রতি জোর দাবি জানাচ্ছি।
বন্ধুরা,
অবৈধ ক্ষমতার সঙ্গে যুক্ত থেকে চর্চিত হিংসার স্ফুরণে ছাত্রলীগের বেপরোয়া অনাচার ক্রমবর্ধমান মাত্রায় সংঘটিত হচ্ছে। গত পরশু রাতে সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে যোগ না দেয়ায় বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ম বর্ষের ছাত্রী আফসানা আহমেদ ইভাকে প্রচন্ড শীতের রাতে হল থেকে জোরপূর্বক বের করে দেয় ছাত্রলীগ। এই অন্যায়ের বিরুদ্ধে ইভার প্রতিবাদের অনন্য দৃষ্টান্ত গোটা জাতির বিবেককে নাড়া দিয়েছে। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি এই ন্যাক্কারজনক ঘটনায় শুধু ছাত্রলীগ নয়, এর সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভোষ্ট ও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সমানভাবে এই দুস্কর্মের জন্য দায়ী। আমি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি’র পক্ষ থেকে এই ঘৃন্য অপকর্মের তীব্র ধিক্কার জানাচ্ছি।
এভারে ভিন্ন একটি বিষয়ে আপনাদের মনোযোগ আকর্ষণ করছি-
গত ০৬ জানুয়ারী ২০১৮ চাঁদপুর জেলাধীন ফরিদগঞ্জ থানা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক শরীফ মোহাম্মদ ইউনুসসহ প্রায় অর্ধশত নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। আমি দলের পক্ষ থেকে নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়েরের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং অবিলম্বে দায়েরকৃত বানোয়াট মামলা প্রত্যাহারের জোর দাবি করছি।
আল্লাহ হাফেজ।