(বিএনপি কমিউনিকেশন) — বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর পার্বত্য চট্রগ্রামের বাংলাদেশী  বিভিন্ন নৃ-গোষ্ঠীর প্রধান সামাজিক উৎসব ও নববর্ষ উপলক্ষে শুক্রবার, এপ্রিল ১৩, ২০১৮, সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো বাণীতে বলেছেন, পাহাড়ী বিভিন্ন নৃ-গোষ্ঠী জনগণের ঐতিহ্য, কৃষ্টি, সংস্কৃতি, ইতিহাস বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদের অপরিহার্য উপাদান। তাদের সৌন্দর্যমন্ডিত সাংস্কৃতিক বৈশিষ্ট জাতীয় ঐতিহ্যকে প্রাচূর্যময় করেছে।

নিচে বিএনপি মহাসচিবের বাণীর পূর্ণপাঠ দেয়া হল   —   

বাণী

”পার্বত্য অঞ্চলবাসী বিভিন্ন নৃ-গোষ্ঠীর প্রধান সামাজিক উৎসব বিঝু, সাংগাই, বৈসুক, বিষু ও বিহু এবং নববর্ষ উপলক্ষে সব সম্প্রদায়ের প্রতি আমার প্রাণঢালা শুভেচ্ছা জানাচিছ। পাহাড়ী বিভিন্ন নৃ-গোষ্ঠী জনগণের ঐতিহ্য, কৃষ্টি, সংস্কৃতি, ইতিহাস বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদের অপরিহার্য উপাদান। তাদের সৌন্দর্যমন্ডিত সাংস্কৃতিক বৈশিষ্ট জাতীয় ঐতিহ্যকে প্রাচূর্যময় করেছে। আবহমানকাল ধরে বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির মধ্যে বসবাস করছে। মানুষে মানুষে মিলনের বাণীই আমাদের লোকজ ঐতিহ্যের উজ্জল অনুষঙ্গ। সাধকেরা সেই মিলনের গানই গেয়েছেন বাংলার রাঙা মাটির পথে পথে। আমি এদেশের সকল নৃ-গোষ্ঠীর সমান অগ্রগতি ও বিকাশ কামনা করি। এই উৎসবের দিনগুলো আনন্দে ভরে উঠুক আর বাংলা নববর্ষ সবার জন্য অনাবিল শান্তি ও সুখের হোক-এই কামনা রইল। ”